রামগড়ে বৃক্ষরোপণ ও চারা বিতরণ করেন রোটারি ক্লাব চিটাগাং সেন্ট্রাল। ছবি-এমদাদ খান
সুপ্রভাত বগুড়া (এমদাদ খান রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি): রোটারি ক্লাব অব চিটাগাং সেন্ট্রালের অর্থায়নে হাজী মুন্সি মকবুল আহমেদ ও হাজী নুর মোহাম্মদ স্মৃতি সংসদের ব্যবস্থাপনায় মঙ্গলবার (৪ আগষ্ট) সকালে উপজেলার রামগড় আইডিয়্যাল হাই স্কুল, কালাডেবা মাদরাসা, বলিপাড়া মাদরাসা ও বলিটিলা মাদরাসায় বিভিন্ন জাতের ৩০০টি চারাগাছ বিতরণ করা হয়েছে।
বৃক্ষরোপন কর্মসূচিকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তর করার লক্ষ্যে সচেতনতামূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এ উদ্যোগ নেয়া হয়। বৃক্ষ রোপণ ও চারা বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন রোটারি ক্লাব অব সেন্ট্রালের সভাপতি অালহাজ্ব মোঃ আবদুর রাজ্জাক, পৌর কাউন্সিলর আবুল বাশর, দৈনিক দুর্বার ও সাপ্তাহিক পারিজাতের সাংবাদিক এ.বি.সিদ্দিক সোহেল,
কালাডেবা মাদরাসার সহ: পরিচালক মাওলানা আবুল বাশার, বলিপাড়া মাদরাসার পরিচালক মাওলানা ক্বারী নুর হোসেন, ইউপি সদস্য মোঃ মফিজুর রহমান রিপন, মাদরাসার শিক্ষক মন্ডলী, পরিচালনা পর্ষদ, ব্যবসায়ী, শ্রমজীবী ও এলাকার গনমান্য ব্যাক্তিবর্গ।
এছাড়াও স্মৃতি সংসদের সভাপতি ইউনুছ পাটোয়ারী, সেক্রেটারি ফয়সাল কবীর, সহ সভাপতি মামুনুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ ইমতিয়াজ তুহিন, কোষাধ্যক্ষ নাজমুল ইসলাম, সদস্যদের মধ্যে সাগর, মারুফ, সাকিল, মাহমুদ, সাকিব, ইফজ প্রমুখ। এ সময় রোটারিয়ান আবদুর রাজ্জাক বলেন,পৃথিবীকে মানুষের বসবাসের উপযোগী রাখতে হলে সবুজের সমাহার বাড়াতে হবে।
গ্রিনহাউস অ্যাফেক্ট মোকাবিলায় গাছপালা বাড়ানোর বিকল্প নেই।আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, বৃক্ষরোপনকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তর করতে পারলে দেশের ১৭ শতাংশ বনভূমি খুব শিঘ্রই প্রকৃতিবিজ্ঞানের দাবি ২৫ শতাংশ বনভূমিকে ছাড়িয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, বৃক্ষরোপনকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তর করতে পারলে বায়ুদূষণও অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব হবে।
বৃক্ষ শুধু ফলমূলের যোগান ই দিবে না, সমৃদ্ধির পথও দেখাবে। উল্লেখ্য, সংগঠনটির উদ্যোগে রামগড়ে করোনা প্রতিরোধ ও স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঈদের দিন মুসল্লী ও পথচারীদের মাঝে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ব্লিচিং পাউডার বিতরণ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here