নন্দীগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় নারী নিহত।

সুপ্রভাত বগুড়া (আবুল কালাম আজাদ): বগুড়ার নন্দীগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় শাপলা খাতুন (২৮) নামের এক এনজিওকর্মী নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘঘটনায় আহত হয়েছে তার স্বামী তাজনুর রহমান ও ৭ বছরের শিশুকন্যা। ৩১ জুলাই সকাল ৯ টার দিকে নন্দীগ্রাম উপজেলার রণবাঘায় বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তারা বগুড়া জেলার কাহালু উপজেলার মালীবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা। জানা গেছে, নিহত শাপলা খাতুন পাবনা জেলার ঈশ্বরদীতে টিএমএসএস এনজিওতে চাকরি করতো। সে ঈদের ছুটিতে স্বামী ও শিশুকন্যাকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরছিল।

এমতাবস্থায় রণবাঘা মিজানুর রহমানের অটো রাইস মিলের সামনে একটি পাথর বোঝাই ট্রাক মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এতে শাপলা খাতুন ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।
তার স্বামী ও শিশুকন্যা মোটরসাইকেলসহ রাস্তার পাশে ছিটকে পড়ে গিয়ে আহত হয়।

স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। কুন্দারহাট হাইওয়ে থানার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম বলেছে, দুর্ঘটনার পরপরই ঘাতক ট্রাকটিসহ চালককে সিংড়া উপজেলার জামতলীতে আটক করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here