বিশ্ববাসীকে পৃথিবীতেই মঙ্গলে বসবাসের অনুভূতি দিতে চায় দুবাই !

সুপ্রভাত বগুড়া (জ্ঞান-বিজ্ঞান): স্থাপত্যে দুবাই সারাবিশ্বের সেরা হতে চায় বিষয়টি এখন আর অজানা নেই কারো। দুবাই এবার বিশ্ববাসীকে পৃথিবীতেই মঙ্গলে বসবাসের অনুভূতি দিতে চায়।

পৃথিবীতেই ‘মঙ্গলগ্রহ’ বানাচ্ছে দুবাই!-সুপ্রভাত বগুড়া

সেই লক্ষ্যেই ২০১৭ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাত আগামী ১০০ বছরের মধ্যে মঙ্গলগ্রহে কলোনি গড়ার উচ্চাকাঙ্ক্ষা ঘোষণা করেছিল।

দুবাইয়ের বাইরে মঙ্গলের শহরের নকশা করেছেন দেশটির স্থপতিরা। এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সিএনএন।

মঙ্গলের কল্পিত শহরগুলোয় মানুষের বসবাসের অভিজ্ঞতা কেমন হতো, তা হাতে-কলমে দেখাতে চাইছে দুবাই। এর সরাসরি তত্ত্বাবধানে থাকবেন আমিরাতের রাষ্ট্রপ্রধান নিজেই।

এক লাখ ৭৬ হাজার বর্গমিটার মরুভূমিতে ‘মার্স সায়েন্স সিটি’ প্রায় ৩০টি ফুটবল মাঠের সমান। এটি তৈরিতে ব্যয় ধরা হয়েছে সাড়ে ১৩ কোটি ডলার।

দুবাইয়ের মোহাম্মদ বিন রশিদ মহাকাশ কেন্দ্র (এমবিআরএসসি) ‘বিজারকে ইঙ্গেল গ্রুপের’ স্থপতিদের মঙ্গলের শহরের নকশা করার অনুমোদন দেয়।

তারা থ্রিডি প্রিন্টার ব্যবহার করে শহরের স্থাপনাগুলো তৈরি করেন। শহরটি শূন্য থেকে অনেকটা সারি সারি গম্ভুজের মতো দেখতে মনে হবে।

ভূগর্ভস্থ ২০ ফুট দৈর্ঘ্যর কক্ষগুলো ক্ষতিকারক বিকিরণ ও উল্কাপিণ্ড থেকে সুরক্ষিত। ইঙ্গেল গ্রুপের অংশীদার জ্যাকব ল্যাঙ্গে বলেন, ‘ভবিষ্যতে মঙ্গলগ্রহে ভূগর্ভস্থ গুহায় স্কাইলাইট থাকবে, যা অ্যাকোরিয়ামের মতো হবে।

মঙ্গলে খোলা পরিবেশে মানুষের শ্বাস-প্রশ্বাস নেয়ার মতো পর্যাপ্ত অক্সিজেন নেই। এ ছাড়া সেখানের তাপমাত্রা মাইনাস ৬৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বলা বাহুল্য, বর্তমানেই ভবিষ্যতকে দেখার এক মহা আয়োজন এটি।

ভিডিও :

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here