আটোয়ারীতে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির মৃত্যু ! ছবি-আকাশ ইসলাম

সুপ্রভাত বগুড়া (আকাশ ইসলাম, আটোয়ারী,(পঞ্চগড়) প্রতিনিধি): পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে ধান বোঝাই ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তির মর্মান্তিক (৩৫) মৃত্যু হয়েছে।

উল্লেখ, উপজেলার আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের গুঞ্জনমারী-বোধগাঁও সড়কের পেটকিব্রীজ নামক এলাকায় মঙ্গলবার গভীর রাতে এই মর্মান্তিক দূর্ঘটনাটি ঘটে বলে এলাকাবাসীরা জানায়।

জানাগেছে, রাতে ধান বোঝাই একটি ট্রাক ওই রাস্তা দিয়ে আটোয়ারী অভিমুখে আসার সময় রাস্তার পাশে ঘুমিয়ে থাকা মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে (৩৫) চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ১০-১২ দিন হতে উপজেলার গুঞ্জনমারী হাট এলাকায় মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি অজ্ঞাত (পাগল) ঘোরাফেরা করতো। মঙ্গলবার রাতে দুর্ঘটনা কবলীত স্থানে ধানের মারাইকৃত খরের ওপর পাগল ঘুমাচ্ছিল।

এদিকে ট্রাকটিতে ধান সরবরাহকারী ব্যক্তি উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের বোধগাঁও গ্রামের জনৈক মো: সামশুল হকের ছেলে মো: দাইমুল ইসলাম (৪০) জানান, পাশর্^বর্তী ঠাকুরগাঁও জেলার রুহিয়া রামনাথহাট এলাকার মো: হবিবর রহমানের ছেলে ধান ব্যবসায়ী মো: কাওসার আলীর (২৩) কাছে তিনি ধান বিক্রি করেন।

এব্যাপারে রুহিয়া রামনাথহাট এলাকার ধান ব্যবসায়ী কাওসার আলী মোবাইল ফোনে জানান, তিনি ধান ক্রয় করেছেন এবং ক্রয়কৃত ধান পরিবহনের জন্য ওই রাতেই উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের বোধগাঁও গোল চত্ত¡র এলাকায় একটি ট্রাকে তুলে দিয়ে মটর সাইকেল যোগে বাড়ির উদ্দ্যেশে রওয়ানা দেন।

দুর্ঘটনার খবরটি তিনি সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানতে পারেন। স্থানীয়রা জানান, ধান ক্রয় করে ফেরার পথে গুঞ্জনমারী হাট এলাকার কয়েক শত গজ পশ্চিম পাশের্^ পেটকি ব্রীজের কাছে রাস্তার পাশে শুয়ে থাকা পাগলকে পিষ্ট করে দ্রুত পালিয়ে যায় ট্রাকটি।

এসময় চালক বেপরোয়া ভাবে ট্রাকটি নিয়ে পালানোর সময় গুঞ্জনমারী বাজারের পাশেই দ্বিতীয় দফায় দুর্ঘটনার কবল হতে অল্পের জন্য রক্ষ্ াপেলেও ট্রাক থেকে পড়ে যাওয়া ৩ বস্তা ধান ফেলে পালিয়ে যান।

এব্যাপারে আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মো: ইজার উদ্দীন পাগলের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পঞ্চগড় মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং পুলিশ বাদী হয়ে সড়ক পরিবহন আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here