নওগাঁয় জেলা ও বিভাগে ১৪ বার শ্রেষ্ঠ উদ্ধার কারি নির্বাচিত হয়েছেন - মিজান। ছবি-অন্তর আহম্মেদ

সুপ্রভাত বগুড়া (অন্তর আহম্মেদ, নওগাঁ): বারংবার যোগ্যতা প্রমান করে চলেছেন নওগাঁ জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর মিজানুর রহমান মিজান। ১৯ জানুয়ারি রবিবার নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে মাসিক কল্যান ও অপরাধ পর্যালচনা সভায় তাকে ডিসেম্বরের/১৯ এর শ্রেষ্ঠ উদ্ধার কারির পুরস্কারে পুরস্কৃত করেন জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া (বিপিএম)।

এছাড়া ২০১৯ ইং বছরে ১১ বার জেলার ও ৩ বার রাজশাহী রেন্জ্ঞের শ্রেষ্ঠ উদ্ধার কারি (মাদক,অস্ত্র,সন্ত্রাসী,চাদাবাজ)দের গ্রেফতার করে শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছেন। জেলা ও বিভাগ সহ গতছরে মোট ১৪ বার শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

নেই কোন ভয়, নেই কোন অহংকার,নওগাঁবাসীর গর্ব যে মানুষটি দিন রাত নিরলস পরিশ্রম করে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর ভাবমুর্তি উজ্জল করার অবদান রাখাসহ মাদক ব্যাবসায়ী চোরা কারবারিদের জাত শত্রু এস আই মিজানুর রহমান মিজান।

২০১৯ ইং জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত পরপর ১৪ বার শ্রেষ্ঠ র্নিবাচিত হওয়ায় নওগাঁ জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)র’ পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এবিষয়ে মিজানুর রহমান মিজান বলেন, নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান মিয়া (বিপিএম) স্যারের দিক র্নিদেশনায় বিষেশ করে ওসি (ডিবি) কে এক শামসুদ্দিন স্যারের বলিষ্ঠ নেত্রীতে আমাদের সকল কাজে অনুপ্রেরণা যোগায়।

আমাদের অপারেশন টিম অভিযানে বাহিরে থাকা কালিন সময়ে দিনে কিম্বা গভির রাত্রিতেও ওসি স্যারকে ফোন করামাত্রই তিনি তৎখনিক দিক র্নিদেশনা দিয়ে থাকেন আমার এই অর্জনের পিছনে ওসি স্যারের ব্যাপক অবদান রয়েছে।

নওগাঁ জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি(ডিবি) কে এম শামসুদ্দিন বলেন,মিজানকে আমি কাছে থেকে পেয়েছি সে সাহসী,অকুতোভয়া, দিন রাত সবসময় নিরলস পরিশ্রম করে কখোনও তার মুখে না শব্দটি নেই।

তার কষ্ট হলেও সিনিয়র দের কোন কমান্ডে কখনও তার অ-পারকতা বা অনিহা নেই। এক কথায় গোয়েন্দা শাখায় মিজানের ভুমিকা অপরিসীম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here