ছবি-সংগ্রহ

সুপ্রভাত বগুড়া ( স্বাস্থ্য কণিকা ): শীতের মওসুমে অনেকেই অ্যালার্জির সমস্যায় ভুগেন। বিশেষত যাদের ঠাণ্ডায় অ্যালার্জির সমস্যা রয়েছে। শীতের সকালে ঘুম থেকেই উঠতে না উঠতেই অনেকেরই হাঁচি-কাশি শুরু হয়ে যায়।

কেউ কেউ একের পর এক অনেকগুলো হাঁচি দিয়ে থাকেন। এই অবস্থায় অনেকে বিব্রতবোধ করেন।এই সমস্যার কারণে অনেকেরই স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিঘ্নিত হয়। শরীর আর মন দুটোই বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে অ্যালার্জির সমস্যায়। 

 যাদের প্রায় প্রতিদিন এই রকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, তাদের জন্য রইল কয়েকটি জরুরি পরামর্শ…

* ঘুম থেকে ওঠার পর বাইরের তাপমাত্রার সঙ্গে মানিয়ে নিতে আমাদের শরীরের বেশ কিছুটা সময় লাগে। তাই সকালে বিছানা ছেড়ে ওঠার সময়ে গায়ে অবশ্যই গরম জামা-কাপড় জড়িয়ে রাখুন।

* বিছানা ছেড়ে মাটিতে পা রাখার আগে সাবধান! ঠাণ্ডা মেঝেতে খালি পায়ে হাঁটলে চট করে ঠাণ্ডা লেগে হাঁচি, কাশি শুরু হয়ে যেতে পারে। তাই খালি পা ফ্লোরে না লাগানোই ভালো। 

* ঘুম থেকে জেগে বিছানা ছাড়ার সময় অনেকের মশারি, বালিশ ও লেপ-কম্বল গুছিয়ে রাখার অভ্যাস রয়েছে। কিন্তু যাদের হাঁচির সমস্যা রয়েছে তারা সকালে কিছু সময় নিয়ে স্বাভাবিক হবার পর এই কাজগুলো করতে পারেন।

কেননা বিছানার জিনিসপত্র নাড়াচাড়া করা থেকেও হাঁচি হতে পারে।

* যারা সকালে জগিং বা শরীরচর্চা করেন, তারা শুরুতে মাথা, নাক-মুখ ঢেকে নিলেই ভাল। এতে বাইরের তাপমাত্রার সঙ্গে স্বাভাবিকভাবে মানিয়ে নিতে সুবিধা হবে।

* হাঁচি, কাশির পর নাক দিয়ে পানি পড়ার মতো সমস্যায় বাজারে একাধিক কার্যকরী ওষুধ-পত্র, নাজাল ড্রপ রয়েছে। তবে এগুলো ব্যবহারের আগে অবশ্যই চিকিত্সকের পরামর্শ নিবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here