সুপ্রভাত বগুড়া (এমরান মাহমুদ প্রত্যয়): থার্টি ফার্স্ট নাইট ও বুদ্ধিজীবী সম্প্রদায়
এই নোংরা কালচারটি আমদানী করেছেন এদেশেরই কিছু বুদ্ধিজীবী। এরা একটি শালীন সমাজের বুনিয়াদ গড়ার পরিবর্তে অশ্লীলতার ভাগাড় ইসলামের দৃষ্টিতে থার্টি ফাস্ট নাইট পালন করা সম্পর্নরুপে না জায়েজ ও হারাম ।

তবে বর্তমান সময়ে উলঙ্গপনা, যুবতীদের শরীর থেকে কাপড় আলাদা করে প্রেমিককে উজাড় করে দেওয়া ভয়াবহ অভিশপ্ত একটি রাত, অধির আগ্রহে স্বেচ্ছায় ধর্ষিত হওয়ার অপেক্ষায় বসে আছে হাজার হাজার উচ্ছৃঙ্খল তরুণী।আর এই মোক্ষম সুযোগ কাজে লাগাতে অপেক্ষায় আছে প্রেমিক নামধারী কিছু নষ্ট প্লেবয়/ পাকিং বয়…এরপর প্রভাত শেষে সন্ধ্যার আগমন তাদের হৃদয় আকাশে উচ্ছাসের মাত্রা বাড়াবে প্রোজ্জ্বল শশিরের মতো।

রাত আসবে অতি আধুনিক তরুণীরা নানা বাহানায় বয়ফ্রেন্ডের আবদার রাখতে বাসা থেকে বের হয়ে আসবে আর হোস্টেল বা মেসে থাকা স্বাধীন রমনীদের কোন ধরনের সমস্যা নেই এরপর ফুল হাতে দাঁড়িয়ে থাকবে দেহলোভী বয়ফ্রেডরা একসময় মদ খেয়ে মাতাল হয়ে পড়বে দুজনেই।

অতঃপর রাতের অন্ধকারে হোটেল কিংবা বিভিন্ন স্থানে দেহের সাময়িক সুখের উন্মাদনায় নিজের পবিত্র দেহ সঁপে দেবে বিছানায় কিছু নারী আর তাকে ভালবাসার দোহাই দিয়ে ভোগ করবে মাংসলোভী পুরুষ নামধারী কিছু পশু।

রাত শেষ ভালবাসাও শেষ ভদ্র পোশাকের আড়ালে লুকিয়ে রাখবে নিজের পশুত্ব মনোভাব এই মানুষ গুলো।কেউ কেউ ছুটে যাবে ডাক্তারের চেম্বারে জন্মনিরোধ পিল খেয়ে নষ্ট করতে তাদের সাময়িক সুখের ফসল হিসেবে সৃষ্ট ভ্রূণ।আর ডাক্তার বলবে এরকম ভুল হতেই পারে সমস্যা নাই।

অতঃপর উচ্ছাসিত হৃদয়ে বের হয়ে আসবে তথাকথিত প্রেমিক যুগল ডাক্তারের কাছ থেকে পারমানেন্ট সেক্স করার অনুমতি পেয়ে এটাকে অভ্যাসে পরিনত করবে কিছুদিন পর সঙ্গী পাল্টিয়ে আবার শুরু হবে এই নষ্টামির খেলা।অনেকে ২৫ ডিসেম্বর থেকে এটা সেলিব্রেট করা শুরু করে দিয়েছে কারন একাধিক বয়ফ্রেড বা গার্লফ্রেন্ডকে একদিনে সময় দেয়া যায়না।তাই আগে থেকেই তারা সেলিব্রেট শুরু করে আজ ও কাল আরেকজন এভাবে।

অবশ্য এসব ছেলেমেয়ের অভিভাবকদের অপরাধ কম নয় অতিরিক্ত স্বাধীনতা দিতে গিয়ে আধুনিক হিসেবে গড়ে তুলতে তাদের ঠেলে দিচ্ছে নাইট ক্লাব সহ নানাপ্রকার অপকর্মের অন্ধকার গুহায়।চলবে পার্টি, ক্লাবে(pan pacific, শেরাটন, রেডিসন), অথবা বাসার ছাদে, মুখ থেকে বের হবে ভিয়ার মদের সুগন্ধি,

কেউ পার্টি মানে হয়তো বেছে নিবে নিসিদ্ধ,হারাম মনোরঞ্জন কপোত কপোতীর লীলা খেলা, অত:পর শুক্রানু ডিম্বানু মিলে তৈরী হবে একটা মাংস পিন্ড অনেকে হয়তো তাও সুযোগ দিবে না, একটা টেবলেট ৭২ ঘন্টার মধ্যে,পরিস্কার সব কিছু করার পরে বলবে just enjoy …দীর্ঘ শাস ফেলার ও জায়গা পাচ্ছি না।

একসময় ইয়াবা মদ খেয়ে লিভ টুগেদারে ব্যস্ত হয়ে পড়বে আর হত্যা করবে পিতামাতাকেও তার প্রমাণ ঐশী।একদিন তাদের মৃত্যু হবে জগতের আদালত থেকে বেঁচে গেলেও স্রষ্টার আদালত থেকে মুক্তি পাবেনা।

বিয়ের পর ভালবাসা একটা পবিত্র বন্ধন স্রষ্টা প্রদত্ত স্বর্গীয় যেখানে একজনের প্রতি অন্যজনের দৈহিক নয় মানসিক আকর্ষণ থাকবে।অতএব এই ভয়ঙ্কর রাত্রি থেকে সাবধান থাকুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here